তথ্য ও প্রযুক্তির মশাল জ্বলে উঠুক হাতে হাতে

test

Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

10/04/2013

কিভাবে আপনার মেদ বা ভুরি কমাবেন







মেদহীন সুন্দর পেট সবারই কাম্য। কিন্তু এটা এখন একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এই মেদ ঝরানো তেমন কঠিন কিছুই নয় যদি আপনি জানতে পারেন কোন পদ্ধতি ব্যবহার করলে দ্রুত পেটের মেদ কমানো যায়। আসুন জেনে নিই কিছু পদ্ধতি যা আপনার পেটের মেদ দ্রুত কমাতে সাহায্য করবে। নিচের খাবার পানীয় গুলো গ্রহন করলে আপনার মেদ দ্রুত ঝরে যাবে।

১. ব্ল্যাক কফি : দুধ, চিনি ছাড়া কালো কফি দারুণ এনার্জি জোগানোর পাশাপাশি থার্মোজেনেসিসের সাহায্যে হজম ক্ষমতা বাড়ায়। ফলে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে।

২. ভেজিটেবল জুস : টোমাটো, গাজর ও আদার রসের তৈরি ভেজিটেবিল জুস পুষ্টিগুণ পরিপূর্ণ। এর ডায়েটারি ফাইবার হজমে সাহায্য করে ওজন কমায়।

৩. গ্রিন টি : এর মধ্যে রয়েছে ফ্লাভনয়েড যার অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি গুণ যা কোমরের অংশের মেদ ঝরাতে সাহায্য করে।

৪. আদা ও লেবু পানি : এক গ্লাস পানি আদা ও লেবুর রস মিশিয়ে সকাল বেলা খান। এতে পেট পরিষ্কার যেমন হবে, তেমনই মেদও ঝরবে। উপরি পাওনা হিসাবে ত্বকও ভালো থাকবে।

৫. ড্যান্ডেলিওন টি : ড্যান্ডেলিওন গাছের মূল মেদ ঝরানোর ওষুধ হিসেবে বহু দিন থেকেই জনপ্রিয়। এই মূল থেকেই তৈরি ড্যান্ডেলিওন টি খেতে পারেন রোজ আর ধীরেধীরে মেদকে জানাতে পারেন গুডবাই।

৬. দারুচিনি ও মধু : এক গ্লাস জলে এক চামচ মধু ও আধ চা চামচ দারুচিনির গুঁড়ো মিশিয়ে খেয়ে নিন। এটা যেমন স্বাস্থ্যকর, তেমনই মেদ ঝরাতে দারুন সাহায্য করে।

৭. খেজুর ও কলা : একটা কলা ও একটা খেজুর এক সঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। এর সঙ্গে এক কাপ বাদাম মিল্ক ও এক চিমটি দারুচিনি মিশিয়ে খেয়ে নিন। হজম ক্ষমতা বাড়িয়ে খিদে কমাতে সাহায্য করে এই মিশ্রণ।

৮. আমন্ড ও আপেল : পাঁচটা আমন্ড ও একটা মাঝারি সাইজের আপেলের সঙ্গে আধ কাপ লো ফ্যাট দুধ বা ৩/৪ কাপ দই মিশিয়ে ব্রেকফাস্টে খেলে অনেক ক্ষণ পেট ভরা থাকবে। ফলে খিদে কম পাবে, ভুঁড়ি কমবে।

পেটের মেদ কমাতে অনেক বেশি পরিমাণে ক্যালোরি ক্ষয় করতে হয়। এজন্য চাই নিয়মিত ব্যায়াম। এটি শরীরকে যেমন সুগঠিত করে তেমনি শরীরকে সুস্থও রাখে। ব্যায়ামের পাশাপাশি সুষম খাবার এর তালিকাও পেটের মেদ কমাতে সাহায্য করে।



No comments:

Post a comment

500

Post Top Ad

Your Ad Spot