বিজয়ের মাস

ফরমালিন কি, এটি কি কি ক্ষতি করে এবং এর থেকে বাঁচার উপায়







ফরমালিনের নাম এখন সবাই জানেন। আর জানবেন নাই বা কেন? ফল থেকে শুরু করে মাছ, মাংস, শাক সবজি, এমনকি দুধে পর্যন্ত দেয়া হচ্ছে এই রাসায়নিক পদার্থ । উদ্দেশ্য হলো দীর্ঘদিন অবিক্রীত রেখে বিক্রি করা আর অধিক মুনাফা অর্জন।

ফর্মালিন (রাসায়নিক সংকেত -CHO-)n হল ফর্মালডিহাইডের পলিমার। ফর্মালডিহাইড দেখতে সাদা পাউডারের মত। পানিতে সহজেই দ্রবনীয়। শতকরা ৩০-৪০ ভাগ ফর্মালিনের জলীয় দ্রবনকে ফর্মালিন হিসাবে ধরা হয়। ফর্মালিন বস্তুটা মূলত টেক্সটাইল, প্লাষ্টিক, পেপার, রং, কনস্ট্রাকশন ও সর্বোপরি মৃতদেহ সংরক্ষণে ব্যবহৃত হয়। ফরমালিনে ফরমালডিহাইড ছাড়াও মিথানল থাকে, যা শরীরের জন্য ক্ষতিকর। লিভার বা যকৃতে মিথানল এনজাইমের উপস্থিতিতে প্রথমেফরমালডিহাইড এবং পরে ফরমিক এসিডে রূপান্তরিত হয়। দুটোই শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

ফরমালিনের কতিপয় ক্ষতিকর দিক-

১) ফরমালিন ও অন্যান্য কেমিক্যাল সামগ্রী সব বয়সী মানুষের জন্যই ঝুঁকিপূর্ণ। তবে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ শিশু ও বৃদ্ধদের ক্ষেত্রে। ফরমালিনযুক্ত দুধ, মাছ, ফলমূল এবং বিষাক্ত খাবার খেয়ে দিন দিন শিশুদের শারীরিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হারিয়ে যাচ্ছে। কিডনি, লিভার ও বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ নষ্ট, বিকলাঙ্গতা, এমনকি মরণব্যাধি ক্যান্সারসহ নানা জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ছে শিশু-কিশোররা। শিশুদের বুদ্ধিমত্তা দিন দিন কমছে।
২) ফরমালিনের মাত্রা বেশী থাকলে খাওয়ার পর পরই মানুষের শরীর অবশ হয়ে যেতে পারে। গর্ভবতী মেয়েদের ক্ষেত্রে সন্তান প্রসবের সময় জটিলতা, বাচ্চার জন্মগত দোষত্রুটি ইত্যাদি দেখা দিতে পারে ও প্রতিবন্ধী শিশুর জন্ম হতে পারে।
৩) বৃক্ক, যকৃত, ফুলকা ও পাকস্থলী সর্বাধিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়। লিভারেও সমস্যা হতে পারে । দেখা যাচ্ছে, কয়েক দিন পরপর একই রোগী ডায়রিয়ায় ভুগছেন, পেটের পীড়া ভালো হচ্ছে না, চর্মরোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।
৪) শিশুদের দৈহিক স্বাভাবিক বিকাশ বাধাগ্রস্ত হয়। এছাড়াও ফরমালিনের ফরমালডিহাইড চোখের রেটিনাকে আক্রান্ত করেরেটিনার কোষ ধ্বংস করে। ফলে মানুষ অন্ধ হয়ে যেতে পারে।
৫) অস্থিমজ্জা আক্রান্ত হওয়ার ফলে রক্তশূন্যতাসহ অন্যান্য রক্তের রোগ, এমনকি ব্লাড ক্যান্সারও হতে পারে।
৬) তাৎক্ষণিকভাবে ফরমালিন, হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড, কারবাইডসহ বিভিন্ন ধরনের ক্ষতিকর কেমিক্যাল ব্যবহারের কারণে পেটেরপীড়া, হাঁচি, কাশি, শ্বাসকষ্ট, বদহজম, ডায়রিয়া, আলসার, চর্মরোগসহ বিভিন্ন রোগ হয়ে থাকে।

ফরমালিন দূর করতে যা করবেন-

১) সবজি রান্না করার আগে ১০ থেকে ১৫ মিনিট গরম পানির মাঝে বেশ খানিকটা লবণ মিশিয়ে তাতে ডুবিয়ে রাখুন । পানিটা সম্পূর্ণ ফেলে দিয়ে আবার পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।
২) ফল খাওয়ার সময় কমপক্ষে ১ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানিতে। আপেল জাতীয় ফলের ক্ষেত্রেও খোসা ছিলে তারপর খান।
৩) ১ ঘন্টার বেশী সময় মাছ/মাংস পানিতে ডুবিয়ে রাখলে শতকরা ৬০ ভাগ ফরমালিন নষ্ট হয়ে যায়।
৪) প্রথমে চাল ধোয়া পানিতে মাছ ভিজিয়ে রাখুন ঘণ্টা খানেক। তারপর সাধারন পানিতে ভালোভাবে ধুয়ে নিলে ৭০ ভাগ ফরমালিন দূর হয়।
৫) ভিনেগার ও পানি একসাথে মিশিয়ে ১৫ মিনিট মাছ/মাংস ডুবিয়ে রাখলে শতকরা ১০০ ফরমালিন নষ্ট হয়ে যায়।
৬) শুটকি মাঝে প্রচুর ফরমালিন দেয়া হয় এখন। এই ব্যাপার থেকে মুক্তি পেতে শুটকি মাছ প্রথমে গরম পানিতে একঘণ্টা, তারপর স্বাভাবিক পানিতে আরও এক ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। ফরমালিন মুক্ত হবার পাশাপাশি স্বাদও বাড়বে।

ফর্মালিন মুক্ত খাবার খান, সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন এই প্রত্যাশায় আজকের মত বিদায় নিচ্ছি।

কিভাবে ডাটা এন্ট্রি করে অনলাইনে আয় করা যায়





অনলাইনে ডাটা এন্ট্রির কাজ করে ইনকাম সম্পর্কে আমরা সকলেই জানি। এই ডাটা এন্ট্রির কাজ আবার বিভিন্ন ধরণের হয়ে থাকে। যেমনঃ
ফর্ম ফিলআপ,
ইন্টারনেট রিসার্চ,
ইমেইল প্রসেসিং,
কপি-পেস্ট,
ক্যাপচা এন্ট্রি,
ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট,
কপিরাইটার ইত্যাদি।

বিভিন্ন মার্কেট প্লেসে ডাটা এন্ট্রির প্রচুর কাজ পাওয়া যায়। আবার এখানে প্রতিযোগিতাও অনেক কারন পুরনো ফ্রিলান্সারদের টপকে কাজ পাওয়া নতুন ফ্রিলান্সারদের জন্য সোনার হরিণ হাতে পাওয়ার মতো।
তাই আপনি যদি প্রতিযোগিতা ছাড়া স্বাধীনভাবে কাজ করে কিছু আয় করতে চান তাহলে ক্যাপচা এন্ট্রি অন্যতম একটি প্লাটফর্ম। এখানে আপনাকে কাজের জন্য অন্যের সাথে প্রতিযোগিতায় নামতে হবে না। আপনি আপনার সময় সুযোগ মতো ফ্রি অ্যাকাউন্ট ওপেন করে স্বাধীনভাবে যখন খুশি তখন কাজ করে আয় করে নিতে পারবেন।
সবচেয়ে বড় কথা হলো এখানে কাজ করার জন্য আপনার অতিরিক্ত কোন দক্ষতার প্রয়োজন নেই। আপনি যদি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারেন এবং ছবিতে দেখানো শব্দ কিংবা নাম্বার ঠিক মতো এন্ট্রি করতে পারেন তাহলেই আপনি এখান থেকে আয় করতে পারবেন। যাই হোক ক্যাপচা এন্ট্রি কাজের জন্য বর্তমানে অনেকগুলো সাইট রয়েছে। আজকে আমি এসবের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ও বিশ্বস্ত কয়েকটি সাইটের কথা আলোচনা করছি ।

মেগাটাইপার্স (MegaTypers):
মেগাটাইপার্স হলো ক্যাপচা এন্ট্রি কাজের জন্য সবচেয়ে ভালো ও বিশ্বস্ত একটি সাইট। এখানে প্রতি ১০০০ শব্দ টাইপের জন্য আপনাকে $০.৪৫ থেকে $১.৫ পর্যন্ত দেয়া হবে। একাউন্ড খোলার জন্য নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

http://www.megatypers.com/

এখানে প্রবেশের পর Free Signup -এ ক্লিক করুন।

অতঃপর যে পেজ আসবে সেখানে প্রথমে আপনার সচল ইমেইল আড্রেস দিন।

পরের ঘরে আপনার ইচ্ছানুযায়ী পাসওয়ার্ড দিন।

তিন নং ঘরে আপনার নাম দিন।

Payment type -এ payza সিলেক্ট করতে পারেন। আবার আপনার অন্য একাউন্ড থাকলে তাও দিতে পারেন।

এবার Invitation Code দিন।
ছোটো বক্সটিতে টিক চিহ্ন দিন এবং ক্যাপচা টাইপ করে Register ক্লিক করুন। আপনার রেজিস্ট্রেশন এর কাজ শেষ।

এবার লগিন করুন, এবং উপরে দেখুন কাজের নমুনা দেয়া আছে । নিচের দিকে START WORK ক্লিক করুন দেখবেন কাজ শুরু হয়েছে।
এবার ক্যাপচা আসবে তা টাইপ করে Submit -এ ক্লিক করুন। এভাবে করতে থাকুন দেখবেন আপনার একাউন্ট এ ডলার জমা হচ্ছে। অ্যাকাউন্টে মিনিমাম $৩ জমা হলেই আপনি টাকা তুলতে পারবেন।

প্রোটাইপার্স (ProTypers):
এর ইউজার ইন্টারফেসও হুবহু মেগাটাইপার্সের মতো। এখানে প্রতি ১০০০ শব্দ টাইপের জন্য আপনাকে $০.৫০ থেকে $১ পর্যন্ত দেয়া হবে।
এটি পেপাল, পায়জা, বিটকয়েন, ওয়েবমানি, পারফেক্ট মানি এবং ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের মাধ্যমে পে করে থাকে। অ্যাকাউন্টে মিনিমাম $৩ জমা হলেই আপনি টাকা তুলতে পারবেন। এজন্য নিচের লিংক এ গিয়ে ফ্রি একাউন্ট খুলুন।
http://www.protypers.com


টুক্যাপচা (2Captcha): এটি ক্যাপচা এন্ট্রি কাজের জন্য অন্যতম একটি সাইট। এখানে প্রতি ১০০০ শব্দ টাইপের জন্য আপনি পাবেন $১।
একাউন্ড খোলার জন্য নিচের লিংক এ ক্লিক করুন

https://2captcha.com

এখানে প্রবেশ করার পর Register ক্লিক করুন।
অতঃপর প্রথমে আপনার সচল ইমেইল আড্রেস দিন।
দুই নং ঘরে আপনার ইচ্ছানুযায়ী পাসওয়ার্ড দিন।
তিন নং ঘরে আবার পাসওয়ার্ড দিন।

এবার ক্যাপচা টাইপ করে Register ক্লিক করুন।
নিচের বক্সটি চেক করে দিন এবং START -এ ক্লিক করুন।
তারপর আপনার কাজের ডাশবোর্ড আসবে।
এখানে Start Work ক্লিক করুন।
এবার ক্যাপচা আসবে তা সঠিকভাবে পুরন করুন তাহলে আপনার একাউন্ট এ ডলার জমা হবে।
আয়কৃত টাকা পেপাল,পায়জা এবং ওয়েবমানির মাধ্যমে পে করে থাকে। অ্যাকাউন্টে মিনিমাম $১ জমা হলেই আপনি টাকা তুলতে পারবেন।

কলতিবাবলো (KolotiBablo):
এটি বিশ্বের টপ ক্যাপচা এন্ট্রি সাইটগুলোর মধ্যে একটি।
প্রতি ১০০০ শব্দ টাইপের জন্য এখান থেকে আপনি পাবেন $০.৫০ থেকে $১ পর্যন্ত।
একাউন্ড খোলার জন্য নিচের লিংক এ ক্লিক করুন

http://kolotibablo.com/

এখন Start work ক্লিক করে যে পেজ আসবে সেই পেজের প্রথমে আপনার নাম দিন।
পরের বক্সে সচল ইমেইল আড্রেস, তারপর পাসওয়ার্ড, ক্যাপচা ইত্যাদি মানে যখন যেটা লাগে তা দিন। এবার রেজিস্টার ক্লিক করুন।
এবার আপনার প্রদত্ত ইমেইলের ইনবক্স চেক করুন। এখন লগিন নাম ও পাসওয়ার্ড কপি করুন এবং লগিন করুন।
এবার অর্থ আয় শুরু করুন লেখাতে ক্লিক করুন। দেখবেন ক্যাপচা আসবে তা সঠিকভাবে পুরন করুন আর ডলার জমা হবে।
টাকা উত্তোলনের জন্য আপনার অ্যাকাউন্টে মিনিমাম $১ জমা হলেই তুলতে পারবেন।

এভাবে নিজে নিজে প্রাকটিস করুন, অনেক কিছু শিখতে পারবেন।