বঙ্গাব্দ

জেনে নিন সালাতের জন্য সাধারণ একটি সানা


আসসালামু আলাইকুম ৷ আজকে আপনাদের সামনে হাজির হলাম নুতন দরকারি একটা দোয়া নিয়ে৷ আমরা মুসলিম হিসেবে অামাদের উপর সালাত ফরজ ৷ সকল অবস্থায় সালাত কায়েম করতে হবে ৷ আর সালাত অাদায় করতে হলে সালাতের ভিতর এবং বাহিরে অনেক দোয়া জানতে হবে ৷ আর সালাতের শুরুতে পড়তে হয় এমন একটি দোয়া যেটা আমরা সানা বলে থাকি সেটা তুলে ধরলাম ৷



আবু হুরায়রা (রাঃ) বলেন, রাসূল (ছাঃ) তাকবীরে তাহরীমা এবং ক্বিরাআতে মধ্যবর্তী সময়ে কিছু সময় চুপ থাকতেন। আমি একবার বললাম, হে আল্লাহর রাসূল (ছাঃ) ! আমার পিতা-মাতা আপনার উপর কুরবান হউক, আপনি যে তাকবীর ও ক্বিরাআতের মাঝে চুপ থাকেন, তখন কি বলেন? তিনি বললেন যে, আমি তখন বলি,       
                                           
উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা বা-‘ইদ বাইনী ওয়া বাইনা খাতা-ইয়া-ইয়া কামা বা-‘আত্তা বাইনাল মাশরিক্বি ওয়াল মাগরিব। আল্লাহুম্মা নাক্বক্বিনী মিনাল খাত্ব-ইয়া কামা- ইউনাক্বক্বাছ ছাওবুল আব্ইয়াযু মিনাদ দানাস। আল্লাহুম্মাগ সিল খাত্ব-ইয়া-ইয়া বিলমা-য়ি ওয়াছ ছালজি ওয়াল বারাদ। 

অর্থ : ‘হে আল্লাহ! আমার ও আমার পাপ সমূহের মধ্যে এমন দূরত্ব সৃষ্টি করে দাও, যেরূপ দূরত্ব তুমি সৃষ্টি করেছ পূর্ব ও পশ্চিমের মধ্যে। হে আল্লাহ ! তুমি আমাকে আমার পাপসমূহ থেকে পরিচ্ছন্ন কর, যেরূপ পরিচ্ছন্ন করা হয় ময়লা থেকে সাদা কাপড়কে। হে আল্লাহ ! তুমি আমার পাপসমূহ ধুয়ে ফেল পানি, বরফ ও শিশির দ্বারা’ ৷
(বুখারী, মুসলিম, মিশকাত, পৃঃ ৭৭, হা/৮১২ ‘তাকবীরের পর কি বলবে’ অনুচ্ছেদ)